হাসপাতাল থেকে ফের পালালো ভারত ফেরত করোনা রোগী

যশোর প্রতিনিধি

আবারও যশোর জেনারেল হাসপাতাল থেকে ভারত ফেরত এক করোনা রোগী পালিয়েছেন। পুলিশ তাকে ফিরিয়ে আনতে অভিযানে নেমেছে ।

ইউনুস আলী গাজী (৪০) নামে ওই ব্যক্তি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ চররামপুর গ্রামের লুৎফর রহমান গাজীর ছেলে।
সূত্র জানিয়েছে, ইউনুস আলী আজ বৃহস্পতিবার বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। ভারত থেকে ফেরার সময় তার করোনা সংক্রান্ত রিপোর্টে পজেটিভ উল্লেখ ছিল। যে কারণে তাকে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটে পাঠান। এরপর তিনি হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে জানানো হয়, বিকেল ৫টা ৫ মিনিটে তাকে করোনা পজেটিভ রোগী হিসেবে ভর্তি করে ওয়ার্ডে পাঠানো হয়।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. আরিফ আহমেদ হাসপাতাল থেকে করোনা রোগী পালানোর কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, বিকেল সোয়া ৫টার দিকে মোবাইলফোনে কথা বলতে বলতে তিনি বের হয়ে যান। সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ জিজ্ঞাসা করলে তিনি রোগী পরিচয় গোপন করে নিজেকে রোগীর স্বজন দাবি করে চলে যান।

তিনি জানান, পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা ওই রোগীকে ফিরিয়ে আনতে অভিযান শুরু করেছে।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম বলেন, আমি এখনও এ বিষয়ে কিছু জানি না। তবে খোঁজ নিচ্ছি।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ২৩ ও ২৪ এপ্রিল এ হাসপাতাল থেকে ভারত ফেরত সাতজনসহ মোট ১০ জন করোনা রোগী পালিয়ে যান। সংবাদ মাধ্যমে বিষয়টি প্রচার হওয়ায় ২৬ এপ্রিল রাতে সকল রোগীকে শনাক্ত করে করে হাসপাতালে ফিরিয়ে এনে ফের ভর্তি করে। সর্বশেষ গত ১০ মে ভারত ফেরত সাত করোনা রোগী হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেলে তাদের গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করার পর ওইদিন বিকেলেই আদালত তাদের জামিনে মুক্তি দেন।