বাড়ি প্রচ্ছদ স্বরূপকাঠিতে সন্ধ্যানদীর ভাঙ্গনে বিলীনের পথে গনমান গ্রাম

স্বরূপকাঠিতে সন্ধ্যানদীর ভাঙ্গনে বিলীনের পথে গনমান গ্রাম

স্বরূপকাঠি (পিরোজপুর) প্রতিনিধি


স্বরূপকাঠিতে সন্ধ্যানদীর অব্যাহত ভাঙ্গনে বিলীনের পথে গনমান গ্রাম। সন্ধ্যার করালগ্রাসে এ গ্রামের অনেক বসতঘর, বাগানবাড়ি, ফসলী জমিসহ হারিয়ে গেছে বিস্তীর্ণ জনপদ । ফলে দিন দিন পাল্টে যাচ্ছে গনমান গ্রামের মানচিত্র। গত বুধ ও বৃহস্পতিবার সন্ধ্যানদীর ভাংগনে ওই গ্রামের প্রায় ২০/২৫ শতাংশ বাগানবাড়ি নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে। ভাঙ্গনের আশংকায় আব্দুর রশিদ ও মো. সামসুল হকের বসতঘর সরিয়ে নিয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গনমান গ্রামের কালাম, আসলাম, কবির, মিজান, ফজলু, আলমগীর, সোহেল,মাসুদ,আবুল,নজরুলসহ অনেকের বসত ঘর, ভিটেমাটিসহ গ্রামটির প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ সন্ধ্যার অতল গহবরে হারিয়ে গেছে। গনমান গ্রামের মো. ফজলুল হক জানান, নদী ভাঙনের ফলে এ এলাকার মানুষ নিঃশ্ব হয়ে গেছে। ভিটে মাটি হারিয়ে অনেক পরিবার মানবেতর জীবনযাপন করছে। ভাঙ্গন কবলিত এলাকায় অনেক পরিবার এখনও তাদের শেষ আশ্রয়স্থল বসত ভিটায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছে। যুগ যুগ ধরে সন্ধ্যানদীর অব্যাহত ভাঙ্গনের ফলে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বসতঘর, হাজার হাজার একর ফসলী জমিসহ বিস্তীর্ণ জনপদ রাক্ষুষী সন্ধ্যা গ্রাস করেছে। এদিকে কৌরিখাড়া বিসিক শিল্প নগরীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সন্ধ্যানদীর ভাঙ্গনের হুমকির সম্মুখীন। বিগত দিনে উত্তর কৌরিখাড়া ও দক্ষিন কৌড়িখাড়া ভাঙ্গন কবলিত খেয়াঘাটসংলগ্ন কিছু এলাকায় ব্লক ও জিও টেক্স ব্যাগে বালু ভর্তি করে ফেলে সাময়িক ভাঙ্গন রোধ হলেও দ.কৌরিখাড়া,পূর্ব সোহাগদল ও গনমান গ্রাম সহ বিভিন্ন এলাকায় ভাংগন অব্যাহত রয়েছে।