স্থগিত যশোর পৌরসভার ভোট ৩১ মার্চ

নিজস্ব প্রতিনিধি

স্থগিত হওয়া যশোর পৌরসভার ভোটগ্রহণ আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য নতুন তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইসির ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এ পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপসচিব মো. আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে নতুন তফসিল ঘোষণা করা হয়। ইসির প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, পূর্ব ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিল বহাল থাকবে। নতুন তফসিলে নতুন করে কেউ আর মনোনয়নপত্র দাখিল করতে পারবেন না। তবে যশোর পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন আগামী ১৫ মার্চ নির্ধারণ করেছে ইসি। আর ভোটগ্রহণ হবে ৩১ মার্চ (বুধবার)।

ইসি সূত্র জানিয়েছে, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ইসির এক প্রজ্ঞাপনে যশোর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করা হয়। স্থগিত পৌরসভার নির্বাচন আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন সংক্রান্ত কার্যক্রম যে অবস্থায় ছিল, সে অবস্থান থেকেই নতুন সময়সূচি অনুযায়ী নির্বাচন হবে।

এর আগে উচ্চ আদালতের আদেশের আলোকে যশোর পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন স্থগিত রাখার নির্দেশ দেয় ইসি। নির্বাচন ব্যবস্থাপনা ও সমন্বয়-১ শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব মোহাম্মদ মোরশেদ আলম স্বাক্ষরিত এক আদেশে যশোর পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করা হয়। স্থগিতের আদেশে বলা হয়েছিল, হাইকোর্টের আদেশের আলোকে যশোর জেলার যশোর পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন স্থগিত করার জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত প্রদান করেছে। গত ৯ ফেব্রুয়ারি যশোর পৌর নির্বাচন স্থগিতের নির্দেশ দেন উচ্চ আদালত।

উল্লেখ্য, দেশের ৩২৯টি পৌরসভার মধ্যে প্রথম ধাপে ২৪টি পৌরসভায় ইভিএমে ভোট হয় ২৮ ডিসেম্বর। দ্বিতীয় ধাপে ৬০টি পৌরসভায় নির্বাচন হয় ১৬ জানুয়ারি। তৃতীয় ধাপে ৬২টি পৌরসভায় নির্বাচন হয় ৩০ জানুয়ারি। চতুর্থ ধাপে ৫৬টি পৌরসভার নির্বাচন হয় ১৪ ফেব্রুয়ারি এবং পঞ্চম ধাপে ২৮ ফেব্রুয়ারি ৩১টি পৌরসভায় নির্বাচন হয়। ষষ্ঠ ধাপে আগামী ১১ এপ্রিল ভোটগ্রহণ হবে।