সাংসদ সিমিন হোসেন রিমি ও তাঁর দুই ছেলে সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত, হাসপাতালে ভর্তি

সিমিন হোসেন রিমি

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধি

যিনি গত একটি বছর গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত পাঁচ শতাধিক ব্যক্তির চিকিৎসাসহ অন্যান্য বিষয়ে সার্বিক খোঁজ-খবর নিয়েছেন। সবরকম সহায়তার হাত বাড়িয়ে ছিলেন সেই সংসদ সদস্য, বঙ্গতাজ তাজউদ্দিন আহমদের কন্যা ও সাহিত্যিক সিমিন হোসেন রিমি ও তাঁর দুই ছেলে সস্ত্রীক করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৬ তারিখ থেকে সাংসদ রিমি করোনায় আক্রান্ত। আক্রান্ত হয়ে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় আইসোলেশনে থেকে ৫ দিন চিকিৎসা নেয়ার পর গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তিনি রাজধানীর ইউনাইডেট হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাঁর স্বামী মোস্তাক হোসাইন।
তিনি আরো জানান, রিমির করোনা পজিটিভ ফলাফল পাওয়ার পর পরিবারের সদস্যরা নমুনা দিলে তাঁর দুই ছেলে রাজিব হোসাইন ও রাকিব হোসাইন সস্ত্রীক কোভিড-১৯ ধরা পড়ে। বর্তমানে তাঁরা হোম আইসোলেসনে রয়েছেন।
সাংসদের স্বামী মোস্তাক হোসাইন আরো জানিয়েছেন, সিমিন হোসেন রিমির সর্দি-জ্বর রয়েছে। সোমবার রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা কিছুটা কমে গেলে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসকের কাছে যান তিনি। সেখানে বেশ কিছু পরীক্ষা করান। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি চিকিৎসকের পরামর্শে উক্ত হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।
তিনি আরো জানিয়েছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য সরকারি নিয়ম অনুযায়ী গত ২৫ মার্চ নমুনা দেন তিনি। তারপর দিন নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসে। তখন থেকেই তিনি বাসায় হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। তাঁর সর্দি-জ্বর দেখা দেয়। তিনি আরো জানান, স্ত্রীসহ ছেলেরা এখন অনেকটাই সুস্থ আছেন। তাদের শারিরীক অবস্থা উন্নতির দিকে। তারা বাসায় হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি সকলের জন্য দোয়া চেয়েছেন।
জানা যায়, মানবিক কাপাসিয়া গড়ার রূপকার, যিনি গত একটি বছর কাপাসিয়া উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত পাঁচ শতাধিক ব্যক্তির চিকিৎসাসহ অন্যান্য বিষয়ে সার্বিক খোঁজ-খবর নিয়েছেন। সবরকম সহায়তার হাত বাড়িয়ে ছিলেন সেই সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরে কাপাসিয়া উপজেলা আওয়ামী পরিবার তথা কাপাসিয়াবাসীর মনে হতাশা ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে।
কাপাসিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, অসাধারণ মানবীয় গুণাবলীর অধিকারী এই সংসদ সদস্য‘র করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরে তার নির্বাচনী এলাকা গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের মধ্যে হতাশা ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। তারা কাপাসিয়ার বিভিন্ন মসজিদে দোয়ার আয়োজন করছেন। অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়েও প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসা. ইসমত আরা জানান, উপজেলাজুড়ে করোনা সংক্রমিতদের পাশে শুরু থেকেই সদা জাগ্রত সিমিন হোসেন রিমি। ঝুঁকি নিয়ে ঘরে ঘরে গিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন। নিজের উদ্যোগে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন রোগীদের। মানবিক সেবা দিয়ে এখন তিনি নিজেই আক্রান্ত।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আবদুস সালাম সরকার জানান, করোনা মহামারি শুরুর পর ঝুঁকিতে পড়ে গর্ভবতী মায়েরা। ঘরে ঘরে তাদের চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে ইউনিয়নভিত্তিক উদ্যোগ নিয়েছিলেন সাংসদ। ওই উদ্যোগে গত বছর থেকে এখন পর্যন্ত প্রসবকালে মাতৃমৃত্যু এখন শূণ্য। এছাড়া শিশুদের জন্য ঘরে ঘরে তিনি শিশুখাদ্য পৌঁছে দিয়েছেন।