বড়াইগ্রামে খালে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার, জমিতে জলাবদ্ধতা

বড়াইগ্রামের সরিষাহাটে বিএডিসির খনন করা খালে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি

বড়াইগ্রামের সরিষাহাটে বিএডিসির খনন করা খালে অবৈধভাবে বাঁধ দিয়ে মাছ শিকার করছেন প্রভাবশালীরা। এতে বিলের পানি নামতে না পারায় শত শত বিঘা জমিতে চলতি রবি মৌসুমে চাষাবাদ করতে পারছেন না চাষিরা। এদিকে খালে মাছ ধরতে না দেওয়ায় স্থানীয় মৎস্যজীবীরাও বিপাকে পড়েছেন।

উপজেলার সরিষাহাট সিঙ্গার বিলের মাঝখান বয়ে যাওয়া খালে পলি পড়ে ভরাট হয়ে যায়। এতে বিলে জলাবদ্ধতায় কোনো আবাদ হচ্ছিল না। তাই বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের(বিএডিসি) উদ্যোগে ভূ-উপরিস্থ পানির মাধ্যমে সেচ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় খালটি পুনঃখনন করা হয়। কিন্তু মাস খানেক আগে সরিষাহাট গ্রামের কয়েকজন প্রভাবশালী খালে বাঁধ দিয়ে পানি আটকে মাছ শিকার করছে। সরিষাহাট গ্রামের কৃষক রফিকুল ইসলাম বলেন, বিলে আমার পাঁচ বিঘা জমি আছে। কিন্তু কয়েকজন মানুষ খালে বাঁধ দেওয়ায় জমিতে এখনও পানি জমে আছে, আবাদ করতে পারছি না।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন সুলতানা জানান, কয়েকজন ব্যক্তি নিজেদের স্বার্থে খালে বাঁধ দেওয়ায় বিলের শত শত বিঘা জমিতে আবাদ হচ্ছে না। এটা খুবই দুঃখজনক। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মারিয়াম খাতুন জানান, এ ব্যাপারে দ্রুত খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।