বামনায় অস্র ও বিষ্ফোরক আইনের মামলায় দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ ২০জনকে জেল হাজতে প্রেরণ

বামনা(বরগুনা) প্রতিনিধি

বরগুনার বামনা উপজেলায় ২নং বামনা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সোহেল সিকদারের সোনাখালী বাজারের নির্বাচনী অফিস ও গোপন আস্তানা থেকে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় সতন্ত্র প্রার্থী সোহেল সিকদার ৩৫(ঘোড়া প্রতীক), স্বতন্ত্র প্রার্থী ও যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তরিকুজ্জামান সোহাগ৩৫ (মটর সাইকেল প্রতীক, ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাফান জোমাদ্দার আকাশ(২৮), কুক্ষাত ডাকাত সরদার সিদ্দিক(২৮), শাহজাহান মল্লিক(৬৪), ইলিয়াছ(২০), রাজ্জাক(২২), শাওন(১৮), নিরু মল্লিক(২৬), আলমগীর(৩৫), ইমরান(১৯), সোহাগ(১৮), সাগর(৩৫), মামুন(২২)সহ ২০জনকে আগ্নে অস্র পিস্তল, ১ ম্যাগাজিন গুলি, ককটেল বোমা, হাতবোমা তৈরির সামগ্রী, দেশীয় অস্র চাকু ও বিষ্ফোরকদ্রব্যসহ গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।
বামনা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, ডিবি পুলিশ বাদী হয়ে আগ্নে অস্র, হাতবোমা, , হাতবোমা তৈরির সামগ্রী ও বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে তাদের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করেন। আটককৃত সকল আসামীকে কোর্টের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী সোনাখালী বাজারে গণসংযোগ করতে গেলে স্বতন্ত্র র প্রার্থী মোঃ সোহেল সিকদার ও তরিকুজ্জামান সোহাগের নেতৃত্বে তাদের সমর্থকরা গুলি ও বোমা হামলা করেন। এতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ৮জন গুরুতর আহত হয়। এলাকাবাসী ও আওয়ামী লীগ সমর্থকরা তাদেরকে দাওয়া দিলে তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী সোহেল সিকদারের অফিস ও আস্তানায় আশ্রয় নিয়ে তিনতলা ভবন থেকে এলোপাতাড়ি গুলি ও বোমা নিক্ষেপ করেন। পরে ডিবি পুলিশ ঘন্টাব্যাপী অভিযান চালিয়ে তাদেরকে অস্র সামগ্রীসহ আটক করে বামনা থানায় নিয়ে আসে।