বাংলাদেশের সঙ্গে যা হলো-

ডেস্ক রিপোট

রান তাড়ায় নেমে গেলেন, কিন্তু জানেনই না আসলে লক্ষ্যটা কত! নেপিয়ারে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ডাকওয়ার্থ-লুইসের ভুলের বলি হলো বাংলাদেশ। যা কিনা মানতে পারছেন না খোদ নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার জিমি নিশাম।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ১৭.৫ ওভারে নিউজিল্যান্ড তুলেছিল ৫ উইকেটে ১৭৩ রান। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দেয়া হয় ১৬ ওভারে ১৪৮।

সেই লক্ষ্য মাথায় নিয়ে ব্যাটিংয়েও নেমে গিয়েছিল টাইগাররা। ১.৩ ওভারে দলের রান যখন বিনা উইকেটে ১২, তখনই খবর এলো-লক্ষ্য ভুল হিসেব হয়েছে। ডাকওয়ার্থ পদ্ধতিতে জিততে হলে ১৬ ওভারে করতে হবে ১৭০ রান। এরপর আরেকবার সংশোধনী- ১৭০ নয়, দরকার ১৭১।

দেড় ওভার খেলা হওয়ার পরও টাইগাররা জানতোই না, তাদের আসলে জয়ের লক্ষ্য কত! একদিকে খেলা চলছে, অন্যদিকে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো বসে হিসেব কষছেন। কি একটা অবস্থা!

জিমি নিশাম তো এমন কাণ্ডে রীতিমত ধুইয়ে দিয়েছেন দায়িত্বশীলদের। বাংলাদেশ ইনিংসে দেড় ওভার খেলা হওয়ার পর কিউই এই অলরাউন্ডার টুইট বার্তায় লিখেন, ‘কত লক্ষ্য সেটি না জেনেই কি করে রান তাড়া করা সম্ভব? নেহায়েত পাগলামি!’

এর তিন মিনিট পর আরেকটু টুইট করেন নিশাম। ‘ক্রিকইনফো’র বাংলাদেশ ক্রীড়া প্রতিনিধি মোহাম্মদ ইসামের ১৬ ওভারে ১৪৮ রানের লক্ষ্য লেখা টুইটে রিটুইট করে নিশাম লিখেন, ‘এখন তারা জানলো এই লক্ষ্যটা সঠিক নয়!’

শুধু নিশামই নন, আরও অনেকে টুইটারে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন এই ঘটনায়। ‘ক্রিকইনফো’র ডাটা এনালিস্ট গৌরব সুন্দরারমন লিখেছেন, ‘নেপিয়ারে সবসময়ই অন্যরকম কিছু বিরতি দেখা যায়। বৃষ্টি, সূর্য, এমনকি ডিএল ক্যালকুলেটরের ভুল!’

ভারতীয় আরেক সমর্থক তার টুইটে ব্যঙ্গ করে লিখেছেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো লক্ষ্য তাড়া করতে নামা দল ব্যাটিং শুরু করে দিল আর তখনও আম্পায়াররা ডিএল ক্যালকুলেটর নিয়ে হিসেবে ব্যস্ত!’