জুড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশী নিহত

 জুড়ী (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারের জুড়ী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে বাপ্পা মিয়া (৩৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। শুক্রবার দিবাগত রাত থেকে শনিবার ভোর রাতের মধ্যে যেকোন একসময় জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের বাংলাদেশ ভারত সীমান্তের পিলার নম্বর ৮২৩ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
নিহত বাপ্পা মিয়া ঐ ইউনিয়নের রাঘনা বটুলী গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে। তবে এ বিষয়ে বিয়ানীবাজার বিজিবি ৫২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. শাহ্ আলম সিদ্দিকী জানিয়েছেন, তারা এরকম একটি কথা শোনেছেন। নিহত ব্যক্তি বাংলাদেশী কিনা এখনো নিশ্চিত হতে পারেননি। তারা পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে পরবর্তী ব্যবস্থা নিবেন।
নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাঘনা বটুলী গ্রামের বাসিন্দা বাপ্পা মিয়া শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে নিজের গৃহপালিত একটি হারিয়ে যাওয়া গরুর সন্ধ্যাণ করতে গিয়ে বাড়ী থেকে বের হন। এরপর রাতে তিনি আর বাড়ী ফিরেননি। তার না ফেরায় স্বজনেরা সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজ নেন। কিন্তু তার কোন সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি। পরে শনিবার সকালে স্বজনরা স্থানীয়ভাবে খবর পান ভারত সীমান্তের অভ্যন্তরে বিএসএফ এর গুলিতে বাপ্পা নিহত হয়েছেন।
নিহত বাপ্পা মিয়ার সমন্ধি সাইফুল ইসলাম নিহতের বিষয়টি ইত্তেফাককে নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয় ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ বলেন, “বিএসএফ এর গুলিতে আমার ইউনিয়নের একজন নিহত হওয়ার খবর শোনেছি । বিষয়টি নিশ্চিত হতে ঐ এলাকায় যাচ্ছি”।