ঘোড়াঘাটের ক্যানেলটি দেশীয় মাছের অভয়ারন্য হতে পারে

ঘোড়াঘাটের ক্যানেলটি দেশীয় মাছের অভয়ারণ্য হতে পারে

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

পরিকল্পনা মাফিক সংস্কার করা হলে ঘোড়াঘাটের ক্যানেলটি দেশীয় মাছের অভয়ারণ্য হিসেবে ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারে। উপজেলার রামেশ্বরপুর মাঠ থেকে উত্পন্ন হওয়ায় এ ক্যানেলটি রামপুর টুবঘরিয়া মাঠ হয়ে শীধলগ্রাম অতিক্রম করে সুরা মসজিদ ডুগডুগী সড়কের উত্তর পাশ দিয়ে জয়রপুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলায় প্রবেশ করেছে। দীর্ঘ এ ক্যানেলটির দুই ধারে রয়েছে হাজার হাজার হেক্টর ইরি বোরো আমন চাষের জমি। ফলে ক্যানেলটি সংস্কার হলে এর সুবিধা পাবে চাষিরা। এদিকে গভীরতা কম হওয়ায় শুস্ক মৌসুমে ক্যানেলটি শুকিয়ে যায়। আবার বর্ষায় পানিতে ভরে যায়। এ সময় এখানে প্রাকৃতিকভাবেই পুটি, সিং, মাগুর, কৈ, গচি, পুয়া, শাটি (গড়াই), শৌলসহ বিভিন্ন দেশীয় মাছ উত্পন্ন হয়।

স্থানীয়রা জানায়, পরিকল্পনা মাফিক সংস্কার হলে এখানে সারা বছর পানি থাকবে। এতে ক্যানেল থেকে সারাবছরই মাছ পাওয়া যাবে। পাশাপাশি এখান থেকে মাছ অন্যান্য স্থানেও রপ্তানি করা যাবে। একই সঙ্গে খননকৃত মাটি দিয়ে পাড় সংস্কার করে বৃক্ষ রোপন করলে এই ক্যানেলটি এক সময় দৃষ্টিনন্দন ক্যানেলে পরিনত হতে পারে।

উপজেলার ৩নম্বর সিংড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মন্ডল জানান, অনেক আগে পূর্বের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান প্রধান কাবিখার অর্থায়নে ক্যানেলটি সংস্কার করেছিলো। তবে বরাদ্দের পরিমান কম থাকায় ক্যানেলটি যেভাবে সংস্কার করা প্রয়োজন তা করতে পারেনি। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাফিউল আলম জানান, প্রকল্পটি অনেক বড়। এরকম প্রকল্প সাধারণত পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক সংস্কার করা হয়। আমরা ক্যানেলটির গুরুত্ব অনুভব করে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে সংস্কারের জন্য অবগত করবো।