অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ সাঁথিয়ায় কলেজ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও মহাসড়ক অবরোধ

পাবনার সাঁথিয়ায় ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগে গতকাল পাবনা-নগরবাড়ি মহাসড়কের বনগ্রাম বাজারে বিক্ষোভ করে কলেজ শিক্ষার্থীরা

সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি

এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগে রবিবার সকালে বিক্ষোভ মিছিল ও পাবনা-নগরবাড়ি মহাসড়ক অবরোধ করেছে সাঁথিয়া উপজেলার মিয়াপুর হাজী জসিম উদ্দিন কলেজের শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে ঐ কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা। তারা কলেজ থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে মহাসড়কের বনগ্রাম উপস্থিত হয়। সেখানে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এ সময় সড়কের দুইপাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে।

কলেজের শিক্ষার্থী সাওন হোসেন, আকিব হোসেন, তুহিনসহ অনেকেই জানান, কলেজের অধ্যক্ষ মজিবুর রহমানের নির্দেশে আমাদের কাছ থেকে ফরম পূরণ বাবদ ২৪ মাসের বেতন, সেশন ফি ও অ্যাসাইন্টমেন্ট ফি গ্রহণ করা হচ্ছে। তারা জানান, করোনাকালে কলেজ বন্ধ রয়েছে। এছাড়া কোন প্রকার অনলাইন ক্লাস না নিয়েই তারা ২৪ মাসের বেতন দিতে চাপ দিচ্ছে। এমন কি সকল প্রকার ফি না দিলে ফেল করানোর হুমকিও দিচ্ছে শিক্ষকরা। পরে সংবাদ পেয়ে সাঁথিয়া ও আতাইকুলা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসেন। তারা শিক্ষার্থী ও কলেজে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন। শিক্ষার্থীদের চাপের মুখে কর্তৃপক্ষ ১২ মাসের বেতন মওকুফ করে দিলে শিক্ষার্থীরা শান্ত হয়।

এ বিষয়ে মিয়াপুর হাজী জসিম উদ্দিন কলেজের অধ্যক্ষ মজিবুর রহমান জানান, সরকারকর্তৃক নির্দেশে আমরা ২৪ মাসের বেতন চেয়েছি। এখানে অতিরিক্ত কিছু নেওয়া হচ্ছে না। কলেজের সভাপতি সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম জামাল আহমেদ জানান, শিক্ষার্থীদের ১২ মাসের বেতন মওকুফ করা হয়েছে।